Largest Dental Chain in Bangladesh

Largest Dental Chain in Bangladesh

টেম্পোরারি ফিলিং হলো এক ধরনের ফিলিং ম্যাটেরিয়াল যা সাময়িক সময়ের জন্য দাঁতের গর্ত ভরাট করতে সহায়তা করে।

দেখুন কিভাবে ফিলিং চিকিৎসা করা হয়

এখনি ফ্রি ডাক্তার পরামর্শ এবং টেম্পোরারি ফিলিং এর জন্য সিরিয়াল বুকিং করুন

Please enable JavaScript in your browser to complete this form.

টেম্পোরারি ফিলিং এর সুবিধা

১. দাঁতের গর্তকে আরো বড় গর্ত হওয়া থেকে প্রতিরোধ করে।

২. দাঁতের গর্তে খাবার আটকে যাওয়া থেকে প্রতিরোধ করে।

৩. কম খরচে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সমাধান।

৪. দাঁতকে সাময়িক সময়ের জন্য সুরক্ষা প্রদান করে।

৫. খুব সহজে অপসারণ করে স্থায়ী ফিলিং করা যায়।

টেম্পোরারি ফিলিং এর অসুবিধা

১. এটি খুব বেশি দীর্ঘস্থায়ী হয় না।

২. সব ধরনের গর্তে টেম্পোরারি ফিলিং চিকিৎসা করা যায় না।

৩. এটি দাঁতের কালারের সাথে ম্যাচিং হয় না।

টেম্পোরারি ফিলিং এবং কসমেটিক ফিলিং এর মাঝে পার্থক্য

টেম্পোরারি ফিলিং কসমেটিক ফিলিং

দাঁতের ক্ষয়গ্রস্ত গর্তকে সুরক্ষা করার জন্য ব্যবহৃত হয় যতক্ষণ না স্থায়ী ভরাট স্থাপন করা সম্ভব হয়।

দীর্ঘমেয়াদী সমাধান হিসেবে ক্ষয়গ্রস্ত দাঁতের গর্ত ভরাট করার জন্য ব্যবহৃত হয়।

সাধারণত নরম উপকরণ দিয়ে তৈরি করা হয় যা সহজেই স্থাপন এবং অপসারণ করা যায়, যেমন জিঙ্ক অক্সাইড-ইউজেনল বা গ্লাস আয়নোমার।

সাধারণত শক্ত উপকরণ দিয়ে তৈরি করা হয় যা দীর্ঘস্থায়ী হয়, যেমন  কম্পোজিট ফিলিং।

কয়েকদিন থেকে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

বেশ কয়েক বছর বা তার বেশি সময় স্থায়ী হতে পারে।

দ্রুত এবং সহজেই স্থাপন করা যায়

স্থাপন করতে আরও বেশি সময় এবং দক্ষতা লাগতে পারে, বিশেষ করে যদি ক্ষয় বেশি হয়।

সাধারণত পার্মানেন্ট ফিলিং  চেয়ে কম খরচ হয়।

খরচ ফিলিং ম্যাটেরিয়াল এবং দাঁতের ক্ষয়ের পরিমাণের উপর নির্ভর করে।

দাঁতের কালারের সাথে ম্যচিং হয় না ।

দাঁতের কালারের সাথে ম্যচিং হয় না ।

মোটকথা:

রোগী সমস্যার জন্য কোন ফিলিংটি উপযোগী তা অবশ্যই একজন অভিজ্ঞ ডাক্তার রোগীকে দেখার পরে যথাযথ সিদ্ধান্ত প্রদান করতে পারবেন।

Our Patient's Riview

ফিলিং বিষয়ক কিছু সাধারন প্রশ্ন ও উত্তর:

দাঁতের ক্ষয় (ক্যাভিটি) পূরণ করতে।ভাঙা দাঁত মেরামত করতে। দাঁতের আকার ও রঙ সামঞ্জস্য করতে।

  1. ধাতু (amalgam) ফিলিং
  2. কম্পোজিট (resin) ফিলিং
  3. গ্লাস আয়োনোমার (glass ionomer) ফিলিং
  4. অস্থায়ী (temporary) ফিলিং

আপনার জন্য কোন ধরণের ফিলিং সবচেয়ে ভালো তা নির্ভর করে:
ক্ষয়ের পরিমাণ
দাঁতের অবস্থান
আপনার বাজেট
আপনার পছন্দ

ফিলিং করার পর কিছুক্ষণ সংবেদনশীলতা অনুভূত হতে পারে। ঠান্ডা ও গরম খাবার/পানীয় এড়িয়ে চলুন।
নিয়মিত ব্রাশ ও ফ্লস করুন। নিয়মিত দাঁতের ডাক্তারের কাছে চেকআপ করুন।

ফিলিংয়ের স্থায়িত্ব নির্ভর করে । ফিলিংয়ের ধরণ, দাঁতের যত্ন, রোগীর মুখের অবস্থা।

১. সাধারণত কসমেটিক ফিলিং ৫ থেকে ১০ বছর স্থায়ী হয়।

২. টেম্পোরারি ফিলিং কয়েক দিন থেকে কয়েক সপ্তাহ স্থায়ী হয়। 

ফিলিংয়ের খরচ নির্ভর করে: ফিলিংয়ের ধরণ, ক্ষয়ের পরিমাণ, ডেন্টিস্টের অভিজ্ঞতা, ক্লিনিকের অবস্থান।

টেক ডেন্টালে ফিলিংয়ের খরচ প্রায় ৳১০০০ থেকে ৳৩০০০ পর্যন্ত হতে পারে।