Largest Dental Chain in Bangladesh

Largest Dental Chain in Bangladesh

ফাঁকা দাঁত বা ডায়াস্টেমা হওয়ার কারণ, চিকিৎসা ও খরচ

আমাদের দেশের অনেক মানুষ বিভিন্ন কারণে এই ফাঁকা দাঁতের সমস্যায় ভুগে থাকেন একে ডায়াস্টেমা বলা হয়। ফাঁকা দাঁতের চিকিৎসার জন্য কম্পোজিট ভিনিয়ার, ব্রেসেস, ক্যাপ ব্রিজ এর মত চিকিৎসা করা হয়।

ডায়াস্টেমা কি?

ডায়াস্টেমা হল দুটি দাঁতের মধ্যে ফাঁকা। এটি যেকোনো দাঁতের মধ্যে হতে পারে, তবে সামনের দুটি দাঁতের মধ্যে হলে সবচেয়ে বেশি লক্ষ্য করা যায়। শিশুদের দাঁতের মধ্যে ফাঁকা থাকাটা স্বাভাবিক, তবে বড়দের ক্ষেত্রে এটি বিভিন্ন কারণে হতে পারে।

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁতের কারণ গুলো কি?

দাঁতের আকার: দাঁত যদি চোয়ালের তুলনায় ছোট হয়, তাহলে ফাঁকা হতে পারে।

জিহ্বার অস্বাভাবিক চাপ: জিহ্বা যদি দাঁতের উপর অতিরিক্ত চাপ দেয়, তাহলে ফাঁকা তৈরি হতে পারে।

মাড়ির রোগ: মাড়ির রোগ মাড়িকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এবং দাঁতগুলোকে আলগা করে ফেলে, ফলে দাঁত ফাঁকা তৈরি হতে পারে।

দাঁত না থাকা

বড় আকারের ফ্রেনাম

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁত কি স্বাভাবিক?

হ্যাঁ, ডায়াস্টেমা বা দাঁতের মধ্যে ফাঁকা স্বাভাবিক হতে পারে। বিশেষ করে শিশুদের দাঁতের মধ্যে ফাঁকা থাকাটা খুবই স্বাভাবিক। তাদের দাঁত পড়ে যাওয়ার পরে, স্থায়ী দাঁত বের হওয়ার সময় ফাঁকা তৈরি হয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, এই ফাঁকা গুলো স্থায়ী দাঁত বের হওয়ার সাথে সাথে বন্ধ হয়ে যায়। বড়দের ক্ষেত্রে ডায়াস্টেমা চিকিৎসার মাধ্যমে বন্ধ করতে হয়।

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁতের কি মুখের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে?

হ্যাঁ, ডায়াস্টেমা বা দাঁতের মধ্যে ফাঁকা মুখের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করতে পারে। কিভাবে প্রভাবিত করে তা নীচে ব্যাখ্যা করা হলো:

খাদ্য আটকে থাকা: ডায়াস্টেমার ফাঁকা খাবার আটকে থাকতে পারে, যা ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি এবং প্লাক তৈরির কারণ হতে পারে।

মাড়ির রোগ: প্লাক জমা হলে মাড়ির রোগ হতে পারে, যা মাড়ির প্রদাহ, মাড়ি ফুলে যাওয়া এবং রক্তপাতের কারণ হতে পারে।

আত্মবিশ্বাসের অভাব: ডায়াস্টেমা কিছু লোকের আত্মবিশ্বাসের অভাব তৈরি করতে পারে। তবে, ডায়াস্টেমা সবসময় মুখের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে না। ছোট ফাঁকা সাধারণত কোন সমস্যা তৈরি করে না।

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁতের লক্ষণগুলি কী কী?

ডায়াস্টেমার প্রধান লক্ষণ হল দুটি দাঁতের মধ্যে ফাঁকা। এই ফাঁক যেকোনো দাঁতের মধ্যে হতে পারে, তবে সামনের দুটি দাঁতের মধ্যে হলে সবচেয়ে বেশি লক্ষ্য করা যায়।

ফাঁকা দাঁতের ব্যবস্থাপনা ও চিকিৎসাঃ

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁত কিভাবে ঠিক করবেন?

ডায়াস্টেমা বা দাঁতের মধ্যে ফাঁকা ঠিক করার জন্য বিভিন্ন উপায় আছে। কিছু জনপ্রিয় চিকিৎসা:

ব্রেসেস: ব্রেসেস দাঁতগুলোকে সোজা করে ফাঁকা বন্ধ করতে পারে। এটি দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা, তবে এটি সবচেয়ে কার্যকর।

ডেন্টাল বন্ডিং: এই পদ্ধতিতে, দাঁতের রঙের কম্পোজিট দিয়ে ফাঁকা পূরণ করা হয়। এটি দ্রুত এবং সহজ চিকিৎসা, তবে এটি দীর্ঘস্থায়ী নাও হতে পারে।

ভেনিয়ার: ভেনিয়ার হল পাতলা দাঁতের আবরণ যা ফাঁক ঢেকে দিতে পারে। এটি দীর্ঘস্থায়ী চিকিৎসা, তবে এটি ব্যয়বহুল হতে পারে।

ইনভিসিলাইন: ইনভিসিলাইন হল স্বচ্ছ, অপসারণযোগ্য ট্রে যা দাঁতগুলোকে সোজা করে ফাঁকা বন্ধ করতে পারে। এটি ব্রেসেসের একটি বিকল্প, তবে এটি সবচেয়ে কার্যকর নাও হতে পারে।

 
https://www.youtube.com/watch?v=IJiLo7U8iQw&t=107s
 

ডায়াস্টেমা বা ফাঁকা দাঁতের চিকিৎসার খরচঃ

বাংলাদেশে চিকিৎসকের অভিজ্ঞতা, ফাঁকার পরিমাণ ও ক্লিনিকের অবস্থান ভেদে ফাঁকা দাঁতের চিকিৎসার খরচ ৳ ৪,০০০ থেকে ৳ ১৫,০০০ পর্যন্ত হতে পারে।

আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো চিকিৎসা নির্ভর করবে:

ফাঁকার আকার: ফাঁকা যত বড় হবে, চিকিৎসা তত জটিল হবে।

আপনার বাজেট: চিকিৎসার খরচ অনুসারে পরিবর্তিত হতে পারে।

আপনার পছন্দ: কিছু লোক দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত, অন্যরা দ্রুত এবং সহজ সমাধান চায়।

আমি কি ডায়াস্টেমা প্রতিরোধ করতে পারবোঃ

কিছু ক্ষেত্রে ডায়াস্টেমা প্রতিরোধ করা সম্ভব, তবে সবসময় নয়।

আপনি ডায়াস্টেমা প্রতিরোধ করতে পারেন:

নিয়মিত ব্রাশ করুন এবং ফ্লস করুন: দিনে দুবার ব্রাশ করুন এবং একবার ফ্লস করুন। এটি মাড়ির রোগ এবং দাঁতের ক্ষয় প্রতিরোধ করবে, যা ডায়াস্টেমার কারণ হতে পারে।

মাড়ির পরীক্ষা করান: নিয়মিত মাড়ির পরীক্ষা করান এবং দাঁত পরিষ্কার করান। এটি মাড়ির স্বাস্থ্য বজায় রাখবে এবং ডায়াস্টেমা প্রতিরোধ করবে।

জিহ্বার অস্বাভাবিক চাপ এড়িয়ে চলুন: যদি আপনার জিহ্বা দাঁতের উপর অতিরিক্ত চাপ দেয়, তাহলে একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে কথা বলুন। তারা আপনাকে এই সমস্যা সমাধান করতে সাহায্য করতে পারবেন।

তবে, কিছু ক্ষেত্রে ডায়াস্টেমা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়, যেমন:

জিনগত কারণ: কিছু লোকের জিনগতভাবে দাঁতের মধ্যে ফাঁকা হয়ে থাকে।

দাঁতের আকার: যদি দাঁত চোয়ালের তুলনায় ছোট হয়, তাহলে ফাঁকা হতে পারে।

ডায়াস্টেমা কি বয়সের সাথে বৃদ্ধি পায়?

ডায়াস্টেমা বা দাঁতের মধ্যে ফাঁকা বয়সের সাথে সাথে বৃদ্ধি পেতে পারে, তবে সবসময় নয়। কিছু ক্ষেত্রে, ডায়াস্টেমা বয়সের সাথে সাথে বৃদ্ধি পেতে পারে কারণ:

মাড়ির রোগ: মাড়ির রোগ মাড়িকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এবং দাঁতগুলোকে আলগা করে ফেলে, ফলে ফাঁকা বৃদ্ধি পেতে পারে।

দাঁতের ক্ষয়: দাঁতের ক্ষয় দাঁতের আকার কমাতে পারে, ফলে ফাঁক বৃদ্ধি পেতে পারে।

জিহ্বার অস্বাভাবিক চাপ: যদি জিহ্বা দাঁতের উপর অতিরিক্ত চাপ দেয়, তাহলে ফাঁকা বৃদ্ধি পেতে পারে।

আপনার যদি ডায়াস্টেমা থাকে এবং আপনি এটি নিয়ে উদ্বিগ্ন হন, তাহলে একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে কথা বলুন। তারা আপনাকে আপনার ডায়াস্টেমা বয়সের সাথে সাথে বৃদ্ধি পাবে কিনা তা সম্পর্কে ধারণা দিতে পারবেন এবং আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো চিকিৎসার বিকল্প সম্পর্কে পরামর্শ দিতে পারবেন।

ফাঁকা দাঁতের চিকিৎসার জন্য টেক ডেন্টাল এর মত ডেন্টাল ক্লিনিকে যোগাযোগ করতে পারেন। তাদের ঢাকা মিরপুর, উত্তরা, বাড্ডা, মালিবাগযাত্রাবাড়িতে শাখা রয়েছে। যোগাযোগের নাম্বারঃ ০৯৬৩৮-০০০৫০৫