দাঁতের ব্যাথা সমাধানে

রুট ক্যানেল চিকিৎসা

দাঁতে বড় গর্ত, দীর্ঘস্থায়ী ক্ষয়, ভাঙা দাঁত, অসহ্য দাঁতের ব্যথা, দাঁতের সংবেদনশীলতা – এইসব ক্ষেত্রে রুট ক্যানেল চিকিৎসা করা হয়। দাঁতের মজ্জা বা পাল্প অপসারণ করে দাঁতের শিকড় পূরণ করা হয় এই প্রক্রিয়াতে।

এই চিকিৎসার জন্য সাধারনত ৩-৪ বার ক্লিনিকে আসতে হয়। দাঁতের মজ্জা বা পাল্প অপসারণ, শিকড় পরিষ্কার, কৃত্তিম ভাবে শিকড় পূরণ এবং ক্যাপ লাগানো – এই ধাপ গুলোর মাধ্যমে চিকিৎসাটি শেষ হয়।

রুট ক্যানেল চিকিৎসার খরচ

বর্তমানে ৪০% ডিসকাউন্টে রুট ক্যানেল ও পোর্সেলিন ক্যাপ পাচ্ছেন মাত্র ৫,৯৯০৳ ( প্রতি দাঁত)

দেখুন কিভাবে রুট ক্যানেল চিকিৎসা করা হয়

রুট ক্যানেল চিকিৎসার সুবিধাঃ

রুট ক্যানেল চিকিৎসার অসুবিধাঃ

ফিলিং ও রুট ক্যানেলের পার্থক্য:

ফিলিং রুট ক্যানেল

দাঁতের ক্ষয়গ্রস্ত অংশে ফিলিং ম্যাটেরিয়াল দিয়ে পূরণ করার প্রক্রিয়া।

দাঁতের ক্ষয় যখন মজ্জা পর্যন্ত পৌঁছে যায় তখন রুট ক্যানেল করা হয়।

এই পর্যায়ে দাঁতে সাধারনত ব্যথা থাকে না।

এই পর্যায়ে দাঁতে সাধারনত ব্যথা থাকে। তবে দাঁত অনেক বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হলে অনেক সময় ব্যথা থাকে না।

দাঁতের ক্ষয় যখন এনামেল ও ডেন্টিন স্তর পর্যন্ত সীমাবদ্ধ থাকে তখন ফিলিং করা হয়।

দাঁতের মজ্জা (pulp) পর্যন্ত সংক্রমণ ছড়িয়ে গেলে রুট ক্যানেল করা হয়।

দ্রুত, সহজ ও ব্যথামুক্ত প্রক্রিয়া।

জটিল ও সময়সাপেক্ষ প্রক্রিয়া।

দাঁতের রঙের সাথে মিশে যায়, দেখতে সুন্দর।

কৃত্রিম মুকুট বা ক্যাপ লাগাতে হয়।

তুলনামূলক কম ব্যায়বহুল। অনুমানিক ৳ ২,০০০ - ৳ ৩,০০০

তুলনামূলক বেশী ব্যায়বহুল। অনুমানিক ৳ ১০,০০০ - ৳ ১২,০০০

১ ভিজিটেই চিকিৎসাটি শেষ হয়।

৩-৪ ভিজিটে চিকিৎসাটি শেষ হয়।

পোর্সেলিন ও জিরকোনিয়া ক্যাপের মধ্যে পার্থক্যঃ

পোর্সেলিন ক্যাপ জিরকোনিয়া ক্যাপ

পোর্সেলিন ক্যাপ দাঁতের কালার এর সাথে তুলনামূলক কম ম্যাচ করে।

জিরকোনিয়া তুলনামূলক দাঁতের কালারের সাথে বেশি ম্যাচ করে।

এটি বেশি চাবানোর প্রেশার নিতে পারে তাই মাড়ির দাঁতের জন্য অত্যন্ত উপযোগী।

এটি কম চাবানোর প্রেশার নিতে পারে তাই সামনের দাঁতের জন্য উপযোগী।

এটি তুলনামূলক কম সৌন্দর্যবর্ধক।

এটি তুলনামূলক বেশি সৌন্দর্য বর্ধক।

পোর্সেলিন ক্যাপের জন্য মেটাল সাপোর্ট প্রয়োজন হয়।

জিরকোনিয়া ক্যাপের জন্য মেটাল সাপোর্ট প্রয়োজন হয় না।

দীর্ঘদিন ব্যবহারে পোর্সেলিন ক্যাপ এর কালার নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

জিরকোনিয়া ক্যাপের কালার নষ্ট হয়ে যাওয়ার কোন ভয় নেই।

পোর্সেলিন ক্যাপ মাড়ির দাঁতের ক্ষেত্রে মেটাল বাইট সবচেয়ে উত্তম, মেটাল বাইট মানে হচ্ছে কামড়ের জায়গাটি মেটাল থাকবে। কামড়ের জায়গাতে পোর্সেলিন থাকলে এটি ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

মাড়ির দাঁতের ক্ষেত্রেও জিরকোনিয়া ক্যাপ করা যায় তবে এক্ষেত্রে শক্ত খাবারের খাওয়া থেকে সচেতন থাকতে হবে

Our Patient's Riview

রুট ক্যানেল বিষয়ক কিছু সাধারন প্রশ্ন ও উত্তর:

দাঁতের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষয়, ভাঙা দাঁত, অসহ্য দাঁতের ব্যথা, দাঁতের সংবেদনশীলতা, দাঁতের মজ্জায় (pulp) সংক্রমণ।

সাধারণত, রুট ক্যানেল চিকিৎসা ৩-৪ বারে সম্পন্ন হয়।

না, আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে রুট ক্যানেল চিকিৎসা ব্যথামুক্তভাবে করা হয়।

রুট ক্যানেল চিকিৎসার সফলতার হার 90% এর বেশি।

চিকিৎসার পর কিছুক্ষণ সংবেদনশীলতা অনুভূত হতে পারে। ঠান্ডা ও গরম খাবার/পানীয় এড়িয়ে চলুন। নিয়মিত ব্রাশ ও ফ্লস করুন। নিয়মিত দাঁতের ডাক্তারের কাছে চেকআপ করুন।

রুট ক্যানেল চিকিৎসা দীর্ঘস্থায়ী সমাধান প্রদান করে। যথাযথ যত্ন নেওয়া হলে, রুট ক্যানেল চিকিৎসা ১০-১৫ বছর বা তার বেশি স্থায়ী হতে পারে।

দাঁত অপসারণ: দাঁত তোলা হল রুট ক্যানেল চিকিৎসার বিকল্প।

ক্যাপের বিষয়ে কিছু সাধারণ প্রশ্ন ও উত্তরঃ

ক্যাপ, যা কৃত্রিম মুকুট নামেও পরিচিত, হলো দাঁতের উপরে স্থাপন করা এক ধরণের কভারিং। এটি দাঁতকে রক্ষা করতে, শক্তিশালী করতে এবং এর আকৃতি ও রঙ উন্নত করতে ব্যবহৃত হয়।

রুট ক্যানেল চিকিৎসার পরে দাঁতের স্থায়িত্ব বৃদ্ধি করার জন্য।
দুর্বল বা ভাঙা দাঁতকে রক্ষা করার জন্য।
দাঁতের ক্ষয় বা দাঁতের ফাঁকা পূরণ করার জন্য।
দাঁতের উপর ব্রিজ বা ডেন্টাল ইমপ্লান্ট স্থাপন করার জন্য।

পোর্সেলিন ক্যাপ: এগুলি অত্যন্ত শক্তিশালী এবং টেকসই এবং পিছনের দাঁতের জন্য ভালো পছন্দ।
জিরকোনিয়া ক্যাপ: এগুলি প্রাকৃতিক দাঁতের সাথে খুব মিলে যায় এবং সামনের দাঁতের জন্য ভালো পছন্দ।

প্রথমে, দাঁতের ডাক্তার দাঁতকে প্রস্তুত করবেন, যার অর্থ দাঁতের কিছু অংশ কেটে দাঁতকে ছোট করবেন।
এরপর, দাঁতের মাপ নেওয়া হবে এবং ল্যাবে ক্যাপ তৈরি করা হবে।
পরবর্তীতে, ক্যাপ দাঁতে স্থাপন করা হবে এবং বিশেষ ডেন্টাল সিমেন্ট দিয়ে দাঁতটি স্থায়ী করা হবে।

কঠিন খাবার খাওয়ার সময় সাবধানতা অবলম্বন করুন।
নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করুন এবং ফ্লস করুন।
নিয়মিত দাঁতের ডাক্তারের কাছে চেক-আপ করান।

যথাযথ যত্নের সাথে, ক্যাপ ১০-১৫ বছর বা তার বেশি সময় স্থায়ী হতে পারে।

ক্যাপের ধরণ, দাঁতের অবস্থান এবং ডেন্টাল ডাক্তারের অভিজ্ঞতার উপর নির্ভর করে খরচ পরিবর্তিত হয়। টেক ডেন্টালে ধরন অনুযায়ী ক্যাপের খরচ ৫,০০০ ৳ থেকে ২০,০০০ ৳

ক্যাপ লাগানো ছাড়াও, দাঁতের ক্ষয় বা ভাঙা দাঁতের চিকিৎসার জন্য অন্যান্য বিকল্পও রয়েছে, যেমন:

  • ফিলিং: ছোট দাঁতের ক্ষয় পূরণ করার জন্য।
  • ইনলে: বড় দাঁতের ক্ষয় পূরণ করার জন্য।
  • ডেন্টাল ভেনিয়ার: দাঁতের রঙ এবং আকৃতি উন্নত করার জন্য।

রুট ক্যানেল চিকিৎসা সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা গুরুত্বপূর্ণ। এই প্রবন্ধটি রুট ক্যানেল চিকিৎসা সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে। আপনার যদি আরও প্রশ্ন থাকে, তাহলে একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।