দাঁতের গর্তে

কম্পোজিট  ফিলিং চিকিৎসা

দাঁতের গর্তে কম্পোজিট ফিলিং দীর্ঘস্থায়ী সমাধান, দাঁতের রঙের সাথে মিশে যায়, দ্রুত ও সহজ প্রক্রিয়া, দাঁতের কাঠামোকে শক্তিশালী করে। নিয়মিত যত্ন নিলে দীর্ঘস্থায়ী হয়। দাঁতের ক্ষয়ের কার্যকর চিকিৎসা।

Untitled-1
Please enable JavaScript in your browser to complete this form.

ফিলিং কখন প্রয়োজন হয়?

দাঁতের গর্ত (ক্যাভিটি) পূরণ করতে, ভাঙা দাঁত মেরামত করতে, দাঁতের আকার ও রঙ সামঞ্জস্য করতে।

দেখুন কিভাবে ফিলিং চিকিৎসা করা হয়

মোটকথা:

 ফিলিং দাঁতের ক্ষয়ের প্রাথমিক পর্যায়ে ব্যবহার করা হয়, রুট ক্যানেল শেষ পর্যায়ে করা হয় করা হয়। ফিলিং দ্রুত ও সহজ, রুট ক্যানেল জটিল ও সময়সাপেক্ষ। তাই গর্ত দেখা দিলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ফিলিং করে ফেলা উত্তম এতে পরবর্তিতে রুট ক্যানেল প্রয়োজন হয় না

Our Patient's Riview

ফিলিং বিষয়ক কিছু সাধারন প্রশ্ন ও উত্তর:

দাঁতের ক্ষয় (ক্যাভিটি) পূরণ করতে।ভাঙা দাঁত মেরামত করতে। দাঁতের আকার ও রঙ সামঞ্জস্য করতে।

ধাতু (amalgam) ফিলিং
কম্পোজিট (resin) ফিলিং
গ্লাস আয়োনোমার (glass ionomer) ফিলিং

আপনার জন্য কোন ধরণের ফিলিং সবচেয়ে ভালো তা নির্ভর করে:
ক্ষয়ের পরিমাণ
দাঁতের অবস্থান
আপনার বাজেট
আপনার পছন্দ

ফিলিং করার পর কিছুক্ষণ সংবেদনশীলতা অনুভূত হতে পারে। ঠান্ডা ও গরম খাবার/পানীয় এড়িয়ে চলুন।
নিয়মিত ব্রাশ ও ফ্লস করুন। নিয়মিত দাঁতের ডাক্তারের কাছে চেকআপ করুন।

ফিলিংয়ের স্থায়িত্ব নির্ভর করে:
ফিলিংয়ের ধরণ, দাঁতের যত্ন, রোগীর মুখের অবস্থা।
সাধারণত, ফিলিং ৫ থেকে ১০ বছর স্থায়ী হয়।

ফিলিংয়ের খরচ নির্ভর করে: ফিলিংয়ের ধরণ, ক্ষয়ের পরিমাণ, ডেন্টিস্টের অভিজ্ঞতা, ক্লিনিকের অবস্থান।

টেক ডেন্টালে ফিলিংয়ের খরচ প্রায় ৳১০০০ থেকে ৳৩০০০ পর্যন্ত হতে পারে।

উল্লেখ্য: এই তথ্যগুলো কেবলমাত্র সাধারণ জ্ঞানের জন্য। আপনার জন্য কোন ধরণের ফিলিং উপযুক্ত তা নির্ধারণ করার জন্য একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা গুরুত্বপূর্ণ।